Johnny Lever Success Story | Inspirational & Motivational Story

Johnny Lever Success Story | Inspirational & Motivational Story

জনি লিভাররে সফলতার কাহানি

ভারতীয় সিনেমা জগতের কমেডির রাজা যার নাম “জন প্রকাশ রাও” যাকে আমরা “জনি লিভার” বলে চিনি, যিনি আজ পর্যন্ত ৩৫০ র বেশি সিনেমা ও নিজের অসাধরণ অভিনয়ের জোরে হাজার হাজার লোকের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন। যার জন্য ওনাকে ১৩ বার ফ্লিম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে সন্মানিত করা হয়েছে। এনাকে সবাই চেনেন কিন্তু খুব কম লোকই হবে যে এনার সাফল্যের পেছনের সংঘর্সকে জানে।

জনি লিভার
জনি লিভার

জনি লিভারের জন্ম ১৪ অগাস্ট ১৯৫৬ তে অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাকাসম জেলায় খুবই গরিব পরিবারে হয়, কিন্তু উনি মুম্বাইয়ে কিংসার্কেল ধারাবিতে বড়ো হন, কারণ ওখানে ওনার বাবা হিন্দুস্তান লিভার ফ্যাক্টরিতে মজদুরি করতেন। পরিবারের সমস্যার জন্য ওনাকে পরাশুনা ছাড়তে হয়, আর নিজের পেট পালার জন্য উনি মুম্বাইয়ের রাস্তায় কলম বেচতে শুরু করেন। এছাড়াও উনি ওনার বাবার সঙ্গে ফ্যাক্টরিতে মজদুরি করতেন। তখনি ওনার নাম জন প্রকাশ রাও থেকে জনি লিভার হয় কারণ তিনি ওখানে কাজ করতেন ও তার সঙ্গে বড় বড় কর্মকর্তাদের মিমিক্রী করে সকলকে মনোরঞ্জনও করতেন।

জনি লিভার
জনি লিভার

আর এইভাবে ওখানকার লোকজন “জন প্রকাশ রাওকে” ভালোবেসে “জনি লিভার” বলে ডাকতে শুরু করে আর তখন থেকে তার নাম “জন প্রকাশ রাও” থেকে “জনি লিভার” হয়ে যায়। জনি লিভারের অভিনয় দেখে ফ্যাক্টরির সহকর্মী সহ বড় বড় কর্মকর্তারাও প্রভাভিত হন, আর যখনি ফ্যাক্টরিতে কোনো অনুষ্ঠান হতো তখন জনি লিভারকে অভিনয় করার জন্য ডাকা হতো।

আর জনি লিভারও নিজের প্রতিভা কে আসতে আসতে বুজতে পারে আর তখন তিনি ফ্যাক্টরিতে কাজ করার সাথে সাথে ছোট ছোট অর্কেস্ট্রাতে কাজ করতে শুরু করেন, যখন তিনি দেখলেন অর্কেস্ট্রাতে তার ইনকাম ভালোই হচ্ছে তখন তিনি ১৯৮১ সালে ফ্যাক্টরি ছেড়ে দেন, আর পুরো সময় তিনি তার প্রতিভাকে উন্নত করার পেছনে লাগায়, আর আসতে আসতে তিনি স্টেজ শোয়ের সফল অভিনেতা হয়ে উঠেন ।

১৯৮২ সালে তিনি সবচেয়ে বড় স্টেজশো করেন অমিতাভ বচ্চনের সাথে, তারপর জনি লিভার স্টেজ শোয়ের জনপ্রিয় কমিডিয়ান হয়ে ওঠেন। তখনি পরিচালক সুনীল দত্ত তার প্রতিভায় প্রভাভিত হয়ে তাকে প্রথম সিনেমা Dard Ka Rishta র জন্য সাইন করেন, এরপর Jalwa সিনেমায় নাসিরুদ্দিন শাহর সঙ্গে দেখা যায়। কিন্তু ওনার আসল সফলতা ১৯৯৩ য়ে সুপারহিট সিনেমা বাজিগর থেকে শুরু হয়, তারপর উনি আর পেছনে ঘুরে দেখেননি আর পর পর কয়েক বছর লাগাতার প্রায় সব সিনেমায় ওনাকে সহঅভিনেতার রূপে দেখা যায় ।

উপসংহার

যদি আপনি আপনার আবেগের সঙ্গে এগিয়ে যান, আপনার প্রতিভা নিশ্চিত ভাবে সফল হবে।

আপনার বহুমুল্য সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ, নিচে কমেন্টস করে আপনি আমাদের মনোবল বাড়াতে পারেন।