আগামী ২১শে মার্চ শুরু হচ্ছে ত্রিস্রোতা মহাপীঠের বার্ষিক মিলন উৎসব – BanglarUtsab

বিজ্ঞাপন

বাংলার উত্‍সব ডিজিটাল ডেস্ক, জলপাইগুড়ি, ১৯ মার্চ: ৫১ শক্তি পীঠের অন্যতম ত্রিস্রোতা মহাপীঠ। ভারত- বাংলাদেশ সীমান্ত ছোঁয়া জলপাইগুড়ির দক্ষিণ বেরুবাড়ির সাতকুড়ায় এই প্রাচীন শক্তি পীঠের অবস্থান। এই মহা পীঠের অধিষ্ঠিতা দেবী গর্তেশ্বরী বা গর্ভেশ্বরী। মহাদেবী ভ্রামরী নামে দেবী এখানে পুজিতা হন। এই পীঠের ভৈরব ভৈরবেশ্বর। প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী এই ত্রিস্রোতা মহাপীঠকে ঘিরে ছড়িয়ে পড়েছে অনেক লোকো কথা।

আগামী ২১ মার্চ এই মহা পীঠের বার্ষিক মিলন উৎসব শুরু হবে। এই উৎসবকে ঘিরে ইতোমধ্যেই মন্দির চত্বর সেজে উঠেছে। বার্ষিক মিলন উৎসব সম্পর্কে আয়োজক কমিটির সম্পাদক হরিশ চন্দ্র রায় জানান, ২১ মার্চ মিলন মেলার উদ্বোধন করবেন আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক তথা এস জে ডি এ র চেয়ারম্যান সৌরভ চক্রবর্তী। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন সাংসদ বিজয় চন্দ্র বর্মণ, জলপাইগুড়ি পৌরপ্রধান মোহন বোস, সমাজসেবী দুলাল দেবনাথ, সন্দীপ মাহাতো, তপন ব্যানার্জি প্রমুখ।

তিনি আরো বলেন, এবারের এই মিলন উৎসবের আসরে মহা ধর্ম সভায় হাজির থাকবেন জগৎ গুরু শঙ্করাচার্য ওঙকার নাথ সরস্বতী মহরাজ। মিলন মেলায় এই বিস্তীর্ণ গ্রামীন জনপদের কৃতি ছাত্র ছাত্রীদের সংবর্ধনা দেওয়া হবে। এছাড়াও দক্ষিণ বেরুবাড়ির ইতিহাসের স্মরণীয় ব্যক্তিদের মরণোত্তর সম্মান জানানো হবে। মেলাকে ঘিরে ধর্মীয় অনুষ্ঠানের সাথেই সোঁদা মাটির গন্ধে ভরা এই জেলার চিরায়ত লোক সংস্কৃতির আসর ও বসবে। প্রথিতযশা লোক শিল্পীদেরও সম্মান জানানো হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদদাতাঃ পিনাকী রঞ্জন পাল

আকর্ষণীয় আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন BanglarUtsab.co.in আপনার সাথে, আপনার পাশে।

You May Also Like