ইভটিজিং এর অভিযোগকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় জটেশ্বর । Banglarutsab.co.in

ইভটিজিং এর অভিযোগকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় জটেশ্বর।

বিদ্যুৎ মিত্র, জটেশ্বর, ১৭ জুলাই ২০১৭ : আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের জটেশ্বর একটি শান্ত প্রকৃতির জায়গা হিসাবে পরিচিত। কিন্তু আজকের ঘটনায় জটেশ্বরে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। ইভটিজিং এর ঘটনা শেষপর্যন্ত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। ঘটনা বিবরণে প্রকাশ কিছু স্কুল ছাত্রী জটেশ্বর থেকে টিউশন পড়ে টোটোগাড়িতে করে বাড়ির দিকে রওনা দেবার সময় ৩জন বাইকে করে পিছু নেয়।

প্রমোদনগর এলাকায় ছেলেগুলো মেয়েগুলোকে অনবরত কটূক্তি করতে থাকে, টোটো গাড়ির চালক বাধা দিলে তাকেও গালিগালাজ করে এবং টোটোতে গাড়ি দিয়ে ধাক্কা মারে, টোটো চালক প্রতিবাদ করলে তাকে ওখানে গালিগালাজ করে ও মারধর করে, আশেপাশে থাকা স্থানীয় লোকজন তাদেরকে হাতেনাতে ধরে গণধোলাই দেয়, পরে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে ফোন করলে পুলিশ এসে তাদেরকে উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে, তাদের সাথে সাথে উত্তেজিত জনতা ও ছাত্রীদের অভিভাবকরা সবাই ফাঁড়ির সামনে হাজির হয়।

ধৃত তিনজনের নাম অর্জুন সাহা(২২), বিজয় মন্ডল(২৩), রাহুল বর্মন(২৫)। অভিভাবকদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ জানানো হয় ইভটিজারদের বিরুদ্ধে। এই পরিস্থিতিতে ফাঁড়ির ভিতরে ঢুকার চেষ্টা করলে  পুলিশ তাদের বাধাদান করলে উত্তেজিত জনতার সাথে খণ্ডযুদ্ধ বাধে। পরিস্থিতি সামলাতে না পেড়ে ফালাকাটা পুলিশ স্টেশনে ফোন করলে ফালাকাটা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী জটেশ্বরে এসে ফাঁড়ি ঘিরে ধরে।

ক্ষুদ্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ এসে ব্যাপক লাঠিচার্জ করে। পুলিশি নিরাপত্তায় অভিযুক্ত ৩জনকে ফালাকাটা থানাতে নিয়ে যাওয়া হলো। ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে জটেশ্বরে বিক্ষোভ ও অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ায় চিন্তিত স্থানীয় লোকজন থেকে শুরু করে ব্যাবসায়ী মহল।

আরো আকর্সনীয় আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন BanglarUtsab.co.in আপনার সাথে, আপনার পাশে।